Select Page

ফেসবুকের পেইজে পোষ্টের বিধিবিধান (বাংলা অনুলিখন) | Facebook Post Rules for Page

May 1, 2020

নিচে যে বিধিবিধান বর্ণনা করা হয়েছে এবং ফেসবুকের Data Policy ও Statement of Rights and Responsibilities ফেসবুকের সমস্ত পেইজেই ক্ষেত্রে প্রোযোজ্য হবে। এছাড়া ফেসবুকে যাদের পেইজ আছে তাদের কনটেন্ট নির্বাচন করার ক্ষেত্রে ফেসবুক Community Standards মেনে চলতে হবে। আপনার ফেসবুক পেইজ; ফেসবুকের সমস্ত আইন-কানুন, বর্ণিত বিধি-বিধান মেনে চলছে সে ব্যাপারে আপনি ব্যক্তিগতভাবে দায়বদ্ধ থাকবেন।
● সাধারণ নিয়মকানুন:
ক) কোন ব্রান্ড, ইনটাইটি (প্লেস অথবা অর্গানাইজেশন) অথবা পাবলিক ফিগারের পেইজ শুধু মাত্র ব্রান্ড, ইনটাইটি বা পাবলিক ফিগারের অথরাইজ রিপ্রেজেনটিভ পরিচালনা করতে পারবে।
খ) কোন ইউজার ব্রান্ড, ইনটাইটি (প্লেস অথবা অর্গানইজেশন) বা পাবলিক ফিগারের সমার্থনে বা আগ্রহের প্রেক্ষিতে যে কেউ পেইজ খুলে মূল ব্যক্তি বা ব্রান্ড বা ইনটাইটির নামে চালিয়ে মানুষকে বোকা বানানো নৈতিকভাবে সমর্থনযোগ্য নয়। অথবা এই পেইজ দ্বারা কারো অধিকার লঙ্ঘন করাও গ্রহণযোগ্য নয়। আপনার পেইজ যদি ব্রান্ড, ইনটাইটি বা পাবলিক ফিগারের অফিসিয়াল পেইজ না হয় তাহলে আপনাকে অবশ্যই:
১. এমনভাবে বক্তব্য রাখা যাবে না বা কনটেন্ট প্রকাশ করা যাবে না যাতে মনে হয় এগুলো অথরাইজড পারসনের প্রতিনিধির কাছে থেকে এসেছে।
২. এটা সুস্পষ্টভাবে তুলে ধরতে হবে যে, এই পেইজটি ব্রান্ড, ইনটাইটি বা পাবলিক ফিগারের অফিসিয়াল পেইজ নয়।
গ) পেইজে যে কনটেন্ট পাবলিশ করা হবে তার স্টাটাস পাবলিক হতে হবে এবং এটি সবার জন্য দৃশ্যমান হতে হবে।
ঘ) আপনাকে ফেসবুকের (like gating functionality) দিয়ে পেইজে আসা লাইক রেসট্রকিটেড করে দিতে হবে যা ফেসবুকের প্রচলিত আইন-কানুনের সাথে সামানজস্যপূর্ণ (Community Standards এর সাথে বিশেষ করে) ।
ঙ) আপনি আপনার পেইজের জন্য এমন কোন টার্মস এন্ড কন্ডিশন সেট করবেন না যা ফেসবুকের Statement of Rights and Responsibilities, Data Policy এর সঙ্গে সামানজস্যপূর্ণ নয়।
চ) ফেসবুকের আপলোড ফাংশনালিটি কোনভাবে অপব্যবহার করা যাবে না।
● পেইজ ম্যানেজমেন্ট
ক. পেইজ নেম এবং ফেসবুক ওয়েব অ্যাডড্রেস
পেইজ কনটেন্টে পেইজের নাম এবং ফেসবুক অ্যাডড্রেস সঠিকভাবে উপস্থাপিত হতে হবে। আপনাকে ফেসবুক পেইজ নেম এবং ফেসবুক ওয়েব অ্যাডড্রেসে পরিবর্তন আনতে হবে যদি ফেসবুক কতৃপক্ষের নির্দেশনা মেনে না চলেন অন্যথা ফেসবুক কতৃপক্ষ আপনার অ্যাডমিনিষ্টেটিভ রাইট খর্ব করবো ।
≥ পেইজের নাম:
১. শুধু জেনেটিক নাম দিলেই হবে না। (e.g., “beer” or “pizza”)
২. সঠিক এবং গ্রামাটিক্যালি নির্ভূল ক্যাপিটালাইজেশন বানান ব্যবহার করতে হবে এবং সব ক্যারেকটার ক্যাপিটাল লেটার ব্যবহার করা যাবে না, অ্যাক্রোনিম ছাড়া।
৩. ক্যারেকটারের সিম্বলে যেমন অতিমাত্রায় যতি চিহ্ন এবং ট্রেড মার্ক ডেজিগনেশন ব্যবহার করা না হয় সেদিক লক্ষ্য রাখতে হবে।
৪. ভাষাভাষা বর্ণনা বা অপ্রয়োজনিয় গুণাবলীর বর্ণনা দেওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।
৫. পেইজের সাবজেক্ট ম্যাটার দিয়ে কাউকে বিভ্রান্ত করা যাবে না। যেমন এটি অফিশিয়াল পেইজ (ব্রান্ড, ইনটাইটি বা পাবলিক ফিগারের সাদৃশ্য পেইজ সৃষ্টি করে) অথবা এই বলে যে, পেইজের সাবজেক্ট ম্যাটার অথরাইজড রিপ্রেজেনটেটিভেন অনুমোদনকৃত।
৬. কারো অধিকারকে লঙ্ঘন করা যাবে না এবং পোষ্ট বা কমেন্টে এমন কিছু যেন প্রকাশ না পায় সেদিক সর্বচ্চ সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে।
খ. নেইম চেঞ্জ এন্ড মার্জ:
নেইম চেঞ্জ এন্ড মার্জ যেন অন্যকে বিভ্রান্ত না করে অথবা কাউকে সম্পূর্ণ ভিন্ন পেইজ বলে ভাবতে বাধ্য না করে এবং পেইজের সাবজেক্ট ম্যাটার যেন আমূল পরিবর্তন না হয়ে যায়। অথবা আপনার নেইম চেইঞ্জ বা পেইজ মার্জ যেন প্রোডাক্ট পেইজ থেকে ব্রান্ড পেইজে বা জেনেরিক বা ওপেনিয়ন পেইজ থেকে ব্রান্ড পেইজে অথবা গ্রুপ থেকে পেইজে রিক্যাটাগোরাইজ হযে যায়।
গ. ডাটা সংগ্রহ:
১. আপনি যদি সরাসরি ইউজারদের কাছ থেকে সরাসরি ডাটা সংগ্রহ করেন তাহলে আপনাকে বিষয়টি ইউজারদের জানাতে হবে এবং এই ডাটা ব্যবহারের জন্য তাদের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে। যেভাবেই হোক আপনি তাদের ডাটা সংগ্রহ করেছেন কিন্তু ব্যবহারের আগে তাদের অনুমতি নেবেন এবং এই ডাটাগুলো অপব্যবহারের হাত থেকে রক্ষা করবেন।
২. আপনি যদি সরাসরি ইউজারদের ডাটা ও কনটেন্ট সংগ্রহ না করে ফেসবুকের অনুমোদন ব্যতীত অটোমেটেডভাবে (হারভেষ্টিং বোট, রোবটস, স্পাইডার, স্ক্রাপার) ইত্যাদি দিয়ে তথ্য সংগ্রহ করেন তাহলে আপনি ফেসবুকে ঢুকতে প্রতিবন্ধকতার সন্মুখীন হবেন।
৩. ” কল-টু-অ্যাকশন “বাটনের মাধ্যমে কথকোপথের তথ্য তাকে সেবা প্রদান ব্যাতীত অন্য কোন উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা যাবে না। আপনি যদি এই তথ্য অন্য কোন ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে চান তাহলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির সুস্পষ্ট অনুমোদন নিন।
ঘ. ট্যাগিং:
১. আপনি নিয়ম বর্হিভুতভাবে কোন কনটেন্ট ট্যাগ করবেন না অথবা নিয়ম বর্হিভুতভাবে কাউকে কোন কনটেন্টে ট্যাগ করতে উৎসাহিত করবেন না। (যেমন – কাউকে কোন ছবিতে ট্যাগ করতে উৎসাহিত করবেন না যেখানে সে নাই)।
● পেইজ ফিচার:
ক. ব্রান্ডেড কনটেন্ট পেইজ
১. ব্রান্ডেড কনটেন্টকে অবশ্যই ফেসবুকের Branded Content Policies পলিসি মেনে চলতে হবে।
২. আপনাকে ফেসবুকের নির্দেশিত সমস্ত নিয়ম-কানুন মেনে চলতে হবে। যেমন যারা ফেসবুক ব্যবহার করে তাদের জন্য অবহিতমূলক প্রয়োজনিয় কিছু বিজ্ঞপ্তি প্রচার করুন। যেমন বাণিজ্যিক প্রয়োজনে আপনি যে সমস্ত পোষ্ট দিয়ে থাকেন সেগুলোর উপর আপনার পণ্যের সীমাবদ্ধতা, আইনি বিষয় ইত্যাদি সম্পর্কিত বিজ্ঞপ্তি প্রচার করতে পারেন।
খ. কভার:
আপনার ফেসবুকের কভার সবাই দেখতে পাবে, এর অর্থ হলো যে কেউ আপনার পেইজে ভিজিট করবে তাদের কাছে আপনার পেইজের কভার দৃশ্যমান হবে। কভার প্রতারণামুলক, বিভ্রান্তিকর অথবা কারো অধিকার খর্বকারক হতে পারবে না। এবং আপনার কভার করোর পারসোনাল টাইম লাইনে ব্যবহারের জন্য উৎসাহিত করবেন না।
গ. অ্যাপ্লিকেশন পেইজ:
আপনার পেইজের অ্যাপগুলো অবশ্যই Facebook Platform Policies এর আওতাভূক্ত হতে হবে।
ঘ. অফারস:
আপনি যদি ফেসবুক অফার টুল ব্যবহার করে কোন অফার তৈরি করেন তাহলে নিচের নিয়ম-কানুন আপনাকে মেনে চলতে হবে:
১. ফেসবুক অফার অবশ্যই সীমিত সময়ের জন্য হতে হবে।
২. আপনি কোন অফার তখনই পরিচালনা করতে পারবেন যদি আপনি কোন পণ্য বা সেবার ব্যবসায়ী হয়ে থাকেন বা তার প্রস্তুতকারক হয়ে থাকেন এবং আপনি সেগুলোকে প্রমোট করে থাকেন।
৩. আপনাকে অবশ্যই প্রকাশ্যভাবে এবং নির্দ্বিধায় পণ্যে সীমাবদ্ধতা প্রকাশ করতে হবে (যেমন – এক্সপাইরি ডেট অথবা পণ্যের সমীবদ্ধতা)
৪. অফার প্রদানের ফলে কোন অপরাধ সংঘটিত হওয়া, প্রতারণা, বিবাদ সৃষ্টি অথবা অন্য যে কোন অপ্রিতিকরণ পরিস্থিতর উদ্ভব হলে আপনি এককভাবে দায়বদ্ধ থাকবেন।
৫. আপনার অফারকে যদি মনে হয় অন্যকোন ব্যাবসায়ী ব্যবসা পরিচালনা করছে তাহলে আপনাকে অবশ্যই সেই ব্যবসায়ীর সাথে যোগাযোগ রাখতে হবে যাতে সে আপনার টার্মস এন্ড কন্ডিশনের উপর সন্মান প্রদর্শন করে।
৬. অফার ক্রিয়েশন টুলস কোন পণ্য বা সেবার অফারের জন্যই শুধু ব্যবহার করবেন। কিন্তু আপনার ওয়েব সাইট বা অন্য কোন কনটেন্ট ইনফরমেশন প্রোমোট বা গিফট সার্টিফিকেট বা ষ্টোর ভ্যালু কার্ডের জন্য ব্যবহার করবেন না।
৭. আপনাকে নিশ্চিত করতে হবে যে আপনার অফার সমস্ত নিয়মকানুন মেনে চলছে। অফারে অনেক বিষয়ের উপর খেয়াল রেখে তৈরি করতে হবে (যেমন – অ্যালকোহল ডিসকাউন্ট, সংখ্যালঘুদের নিয়ে কিছু) এবং আপনি যদি নিশ্চিত না হন যে আপনার অফার সমস্ত প্রয়োগযোগ্য নিয়ম-কানুন মেনে চলছে না তাহলে আপনি কোন বিশেষজ্ঞের সাথে কথা বলুন।
ঙ. প্রোমোশন:
→ আপনি যদি যোগাযোগের জন্য ফেসবুক ব্যবহার করেন বা প্রোমোশনের জন্য কারো অ্যাকাউন্ট তদারকি করেন (যেমন – কনটেস্ট, বা ঘৌড় দৌড়), তাহলে আপনি আপনার কাজের জন্য আইনগতভাবে দায়বদ্ধ থাকবেন।
১. অফিশিয়াল রুলস্
২. অফার টার্মস এন্ড এলিজিব্যালিটি রিকোরমেন্ট (যেমন – বয়স, বাসস্থান সীমাবদ্ধতা করে দেওয়া)
৩. প্রোমোশন পরিচালনা ও প্রাইস অফার করার ক্ষেত্রে নিয়ম-কানুন মেনে চলা (রেজিষ্ট্রেশন ও প্রয়োজনিয় রেগুলেটরি অনুমোদন সংগ্রহ)
→ফেসবুকে প্রোমোশন করতে হলে নিন্মক্ত বিষয় অবশ্যই অর্ন্তভূক্ত করতে হবে।
১. ফেসবুক ব্যবহারকারি বা যারা ফেসবুকে ভিজিট করবে তাদের সকলের জন্য প্রোমোশন কার্যকরি হবে।
২. প্রোমোশন কোনভাবে ফেসবুক দ্বারা স্পন্সরড, এনডোরসড, পরিচালিত বা সম্পর্কিত নয় এটা নিঃদ্বিধায় স্বীকার করুন ।
৩. প্রোমশন আপনার পেইজের দ্বারা অথবা ফেইসবুক অ্যাপ দ্বারা পরিচালিত হতে পারে। এক্ষেত্রে পারসোনাল টাইম লাইন বা ফ্রেন্ডসদের কানেকশন প্রোমশন পরিচালনার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে না (যেমন – নিজের টাইম লাইন বা বন্ধুদের টাইম লাইনে শেয়ারের মাধ্যমে অ্যাকাউন্টে ইন্টার করা অথবা বন্ধুদের পোষ্টে ট্যাগ করার মাধ্যমে তাদের অ্যাকাউন্টে ইন্টারের কোন অনুমোদন নেই। )
৪. ফেসবুক কতৃপক্ষ আপনার প্রোমশনের জন্য কোন সাহায্য করে না এবং আপনি যদি প্রোমশনের জন্য ফেসবুকের সার্ভিস ব্যবহার করেন তাহলে সেটি আপনার নিজ ঝুকিতে করবেন।
চ. পেইজে জবের বিজ্ঞাপন:
ফেসবুক কতৃপক্ষ আমাদেরকে জব পলিসি গাইড লাইন প্রদান করেছে, কোন ধরনের জব ফেসবুকে পোষ্ট করতে আমরা অনুমোদন পাবো। জব পোষ্টকে অবশ্যই কমিউনিটি ষ্টান্ডার্ড ও জব পলিসি মেনে চলতে হবে। আপনার পেইজ সব রকম নিয়ম-কানুন মেনে চলছে এ ব্যাপারে আপনি ব্যক্তিগতভাবে দায়বদ্ধ থাকবেন।
এবার জেনে নেই নিন্মক্ত ধরনের জব পোষ্ট করা ফেসবুকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে:
১. ভ্রান্ত, প্রতারণামুলকও ভুল পথে পরিচালনাকারি জব: জব পোষ্ট ভ্রান্ত, প্রতারণামুলক ও ভুল পথে পরিচালনাকারি বিষয়কে প্রোমট করতে পারবে না। এগুলোর মধ্যে রয়েছে:
– মাল্টি লেভেল মার্কেটিং স্কিম
– অস্পষ্ট বিজনেস মডেল যাতে পরিস্কারভাবে বিজনেস প্লানের উল্ল্যেখ নেই কিভাবে অর্থ উপার্জিত হবে বা ভ্যালু ক্রিয়েট করা হবে।
– এমন ধরনের পোষ্ট যেখানে আবেদন করার আগে অর্থ চাওয়া হয়।
২. অবৈধ পণ্য বা সেবা: জব পোষ্ট যেগুলো অবৈধ বিষয়ে চাকুরির জন্য প্রোমট করা হয়, যার সাথে অবৈধ পণ্য বা সেবা জড়িত সেগুলো প্রোমট করা যাবে না।
– অবৈধ অপরাধমুলক কার্যক্রম
– অবৈধ ড্রাগসের সেলস এন্ড সার্ভিস
– মানব পাচার
– জাল ডকুমেন্ট ও মুদ্রার কারবার
৩. বৈশম্য:
– শুধু মহিলাদের খোঁজা হচ্ছে।
– ৩৫ বছরের নীচের ব্যক্তিরা আবেদন করতে পারবে।
– ক্যাথলিকদের আবেদন করার দরকার নেই।
– অবিবাহিত ব্যক্তিদের খোঁজা হচ্ছে।
৪. যৌন সম্পর্কিত চাকুরির ক্ষেত্রে: যৌন সম্পর্কিত চাকরির অফারের ক্ষেত্রে কোন পোষ্ট দেওয়া যাবে না। এর মধ্যে রয়েছে –
– যৌনতা বিষয়ক শব্দ ব্যবহার ।
– যৌন কাজ আরোপিত করার সাথে সম্পর্কিত বিষয়।
– ছবি নগ্নতা প্রকাশ করে এমন কোন বিষয়।
৫. অ্যাডাল্ট (যৌন সম্পর্কিত) প্রোডাক্ট ও সার্ভিসের ক্ষেত্রে: এমন কোন চাকরির বিজ্ঞাপর দেওয়া যাবে না যেখানে অ্যাডাল্ট সার্ভিস বা অ্যাডাল্ড প্রোডাক্ট এর প্রয়োজন হয়। এর মধ্যে রয়েছে –
– পতিতা বৃত্তি
– এমন চাকুরি যার সাথে সেক্স টয় জজিত।
– যৌনতা বর্ধক পণ্য জড়িত এমন।
– এমন জব যাতে ভিডিও, পাবলিকেশন বা লাইভ ষ্ট্রিমের মাধ্যমে যৌনতা সম্পর্কিত বিষয় প্রচার করা হয়।
৬. ব্যক্তিগত তথ্য: ফেসবুকে পোষ্ট কোন ব্যক্তির ব্যক্তিগত তথ্য বা অর্থনৈতিক তথ্য সন্মলিত বিষয় পোষ্টের আওতায়া আসবে না। এর মধ্যে রয়েছে:
i. ক্রেডিট কার্ড ইনফেরমেশন
ii. ব্যাংক অ্যাকাউন্টের ইনফরমেশন
iii. সরকার প্রদত্ত আইডি আর্ডের ইনফরমেশন
৭. পেইজ কনটেন্ট:
A. পেইজের প্রোমশনে ব্যক্তিগত যে সমস্ত পণ্য বা সেবার উপর বিধি-নিষেধ আছে (এগুলোর মধ্যে আগ্নেয়াস্ত্র, অ্যালকোহল, অ্যাডাল্ট প্রোডাক্ট) অবশ্যই ১৮ বছরের উপরের নিচের ব্যক্তিরা এগুলো দেখা বা ব্যবহারের আওয়ার আসা থেকে বিরত রাখতে হবে।
B. যে সমস্ত পেইজ অনলাইন গেম, স্কিল গেম বা লটারি যার মধ্যে রয়েছে ক্যাসিনো, স্পোর্টস বুকস, বিংগো অথবা পোকার প্রোমোশন করছে এগুলো নির্দিষ্ট কিছু সংখ্যক দেশের জন্য প্রযোয্য ফেসবুক অথরিটির অনুমোদন সাপেক্ষ।
C. কোন পেইজ ফার্মসিউটিক্যাল প্রেসক্রিপশন বিক্রি করতে পারবে না। অনলাইন ফার্মাসিউটিক্যাল ফেসবুকের আগাম অনুমোদন সাপেক্ষ প্রোমোশনের অনুমতি পেতে পারে।
D. কোন পেইজ মিথ্যা কনটেন্ট, প্রত্যারণাপূর্ন কনটেন্ট, বিপথগামী করা অথবা অন্যায় কোন দাবি করতে পারবে না।
E. আপনার পেইজের কভার ফটো বা প্রোফাইল পিকচারে থার্ড পার্টির প্রোডাক্ট, ব্রান্ড বা স্পন্সরের কিছু থাকতে পারবে না।
F. ফেসবুকের নতুন সংযোযন, শো পেইজের শো মার্কে শো এর বিষয়বস্তু সঠিকভাবে উপস্থাপন করতে হবে এবং এটি অবশ্যই প্যারেন্ট ইনটাইটি বা নেটওয়ার্কে উপস্থাপন করবে না।
G. যখন থার্ড পার্টির লিঙ্ক আপনার পেইজ থেকে শেয়ার করবেন তখন পোষ্ট রিভিউ থেকে কোন কিছু এডিট করবেন না।

Share with:


You May Also Like…

Categories

Announcement

 Offer

IT Security

Domain

Hosting

Workshop

E-Commerce

Digital Marketing

Goverment

Facebook Marketing

0 Comments

Submit a Comment

Logini with Social Network